1. admin@dainiksomoy24.com : admin :
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:১৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
২০১৮ সাল থেকে সংবাদ পরিবেশনে জনপ্রিয় দৈনিক সময় ২৪.কম। সারা বাংলাদেশের সকল জেলা ও উপজেলা এবং স্টাফ রিপোর্টার, বিশেষ প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে যোগাযোগ করুন 01716605694
শিরোনাম :
গাইবান্ধা ৫ আসনে উপনির্বাচনে অনিয়মের বিরুদ্ধে রিটার্নিং কর্মকর্তাসহ ১৩৪ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে: ইসি মায়োসাইটিসে ভুগছেন অভিনেত্রী সামান্থা রুথ প্রভু ১ ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধা দিবস রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দিন : বাংলাদেশ ন্যাপ রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির ফাঁসি কার্যকর বিজয়ের ডিসেম্বর মাসের শুরু প্রথমার্ধে গোলশূন্য আর্জেন্টিনা বনাম পোল্যান্ড আট শর্তে সমাবেশের অনুমতি দিয়েছে পুলিশ হরতাল ডেকেছে বাস পরিবহন মালিক শ্রমিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ফিলিস্তিনের আত্মনিয়ন্ত্রণাধিকারের পক্ষে : বাংলাদেশ ন্যাপ ভারতের কারখানায় আগুন একই পরিবারের শিশুসহ নিহত হয়েছেন ৬ জন মেয়র আনিসুল হকের পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

সাবেক ইউপি চেয়ার‍ম্যান ছেলে মেয়ে ও নাতির সাথে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়ে পাশ করলো

দৈনিক সময়ের পত্রিকা ২৪.কম
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ৯৩ বার পঠিত

খাগড়াছড়ি জেলা প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গাতে বাবা-ছেলে-মেয়ে-নাতির এক সঙ্গে এইচএসসি পাস

৫০ বছর বয়সে এইচএসসি পরীক্ষায় বসেছিলেন মো. সিরাজুল ইসলাম। তিনি খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলার তাইন্দং ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান। পরীক্ষায় বসা থেকে আলোচনায় ছিলেন সিরাজুল। তার ফল শোনার জন্য আগ্রহের কমতি ছিল না ইউনিয়নবাসীর।

অবশেষে আজ রবিবার সেই প্রতীক্ষার অবসান ঘটে। চট্টগ্রাম বোর্ড থেকে প্রকাশিত ফলে তিনি পাস করেছেন।

তার সঙ্গেই এবারের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন তার এক ছেলে এবং মেয়ে। এখানেই শেষ নয় বড় মেয়ের ছেলেও (নাতি) পরীক্ষা দেন নানা সিরাজুলের সঙ্গে। ছেলে-মেয়ে এবং নাতির সঙ্গে পরীক্ষায় পাস করায় সাবেক ইউপি চেয়ার‍ম্যান সিরাজুল ভাসছেন প্রশংসায়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সিরাজুল ইলামের ছয় মেয়ে এবং এক ছেলে। এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় ছোট মেয়ে মাহমুদা সিরাজ খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ থেকে মানবিক বিভাগ থেকে পেয়েছেন জিপিএ ৪ দশমিক ১৭।

একমাত্র ছেলে হাফেজ নেসার উদ্দিন আহম্মেদ চট্টগ্রাম বাইতুশ শরফ কামিল মাদরাসা থেকে আলিম পরীক্ষায় অংশ নেন। তিনিও মাদরাসা বোর্ড থেকে জিপিএ৪ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছেন। সিরাজুল ইসলামের বড় মেয়ের ছেলে (নাতি) নাজমুল হাসান খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজ থেকে মানবিক বিভাগে জিপিএ ৪ দশমিক ৬৭ পেয়ে পাস করেছেন।

তবে বড় চমক সিরাজুল ইসলাম (৫০) নিজেই। তিনি খাগড়াছড়ি ইসলাসিয়া সিনিয়র আলিম মাদরাসা থেকে আলিম (প্রাইভেট) পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিলেন। সিরাজুলের প্রাপ্ত জিপিএ ২ দশমিক ১৪। এতেই খুশি তিনি এবং তার পরিবার।

এই বয়সে কেন পরীক্ষা দিলেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে দিলেন সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘দোলনা থেকে কবর পর্যন্ত শিক্ষার বয়স। আমার আগ্রহ ছিল বলেই পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছি। যাতে আমাকে দেখে অন্যরাও উৎসাহ পাবে এই ভাবনা থেকে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছি।

পেশায় ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম বলেন, শিক্ষার বিকল্প নেই। যত বয়স হোক জ্ঞান অর্জন করে নিজে ও দেশকে সমৃদ্ধ করা সম্ভব। ‘

সিরাজুল ইসলাম ১৯৯২ থেকে ৯৭ পর্যন্ত মাটিরাঙ্গার তাইন্দং ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ছিলেন। পরবর্তীতে ২০০৩ থেকে ২০১১ পর্যন্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

আর্কাইভ

ফেসবুকে আমরা