1. admin@dainiksomoy24.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১০:০৬ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
২০১৮ সাল থেকে সংবাদ পরিবেশনে জনপ্রিয় দৈনিক সময় ২৪.কম। সারা বাংলাদেশের সকল জেলা ও উপজেলা এবং স্টাফ রিপোর্টার, বিশেষ প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে যোগাযোগ করুন 01716605694
শিরোনাম :
পদ্মা সেতুতে পেঁয়াজবাহী একটি ট্রাক উল্টে চালকসহ তিনজন আহত হয়েছেন অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে সর্বস্ব হারিয়ে বাসযাত্রী উত্তম চন্দ্র মিথ্যা অপবাদে শিক্ষকের গলায় জুতার মালা কিসের ইঙ্গিত : বাংলাদেশ ন্যাপ কানাইঘাটে বিএমএসএফ ও রেড ক্রিসেন্টের যৌথ উদ্যোগে বন্যার্তদের ফ্রি ঔষধ বিতরন তিতাসে মাদকদ্রব্য রোধকল্পে কর্মশালা অনুষ্ঠিত পদ্মা সেতুতে টোল প্লাজার সামনে বাইক চালকদের বিক্ষোভ পাবনায় একসঙ্গে তিন ছেলে সন্তানের জন্ম নাম পদ্মা সেতু ও উদ্বোধন দেশে ফিরেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের পদ্মাসহ সকল সেতুতে সাংবাদিকদের টোল ফ্রি করা উচিৎ : বিএমএসএফ জোবায়দা রহমানের রুল খারিজ দ্রুত মামলা নিষ্পত্তি করতে বিচারিক আদালতের প্রতি নির্দেশ হাইকোর্টের

মানহানির অভিযোগ অভিনেত্রী সুবাহর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন : গায়ক ইলিয়াস

দৈনিক সময় ২৪
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ৪২ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি : নাসিমা আক্তার নাসরিন

মানহানি করার অভিযোগ এনে এবার অভিনেত্রী শাহ হুমায়রা হোসেন সুবাহর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন আলোচিত গায়ক ইলিয়াস হোসাইন। গত ১৬ ফেব্রুয়ারি হাতিরঝিল থানায় মামলা করেছেন তিনি। আজ রবিবার তিনি নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এই সংগীতশিল্পীর অভিযোগ, সুবাহ গত বছর ২৮ ডিসেম্বর থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ফেসবুকে ইলিয়াসকে নিয়ে মানহানিকর নানা মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করেছেন। এমনকি স্বামীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলাও করেছেন। ইলিয়াস এতদিন চুপ থাকলেও এবার এসব কারণে বাধ্য হয়ে আইনের আশ্রয় নিয়েছেন।

মামলাটি এখন তদন্তাধীন রয়েছে। মামলার এজাহারে ইলিয়াস বলেছেন, হাতিরঝিলের একটি রেস্টুরেন্টে ইলিয়াসকে প্রথম দেখেন সুবাহ। তাকে দেখতে সাবেক প্রেমিক ক্রিকেটার নাসিরের মতো মনে হয় নায়িকার। সুবাহ নিজেই ইলিয়াসের সঙ্গে গিয়ে কথা বলেন এবং নিজেকে নায়িকা হিসেবে পরিচয় দেন। এরপর ইলিয়াসের সঙ্গে থাকা বন্ধুর কাছ থেকে এই গায়কের ফোন নম্বর নেন। রাতে বাসায় ফিরে তাকে ফোন দেন সুবাহ। এক পর্যায়ে ইলিয়াস তাকে এড়িয়ে চলতে শুরু করলে সুবাহ ইলিয়াসের বন্ধুকে ফোন দেন। সেই বন্ধুর মাধ্যমে ইলিয়াসের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে ইলিয়াসকে নিজের বাসায় যেতে বাধ্য করেন সুবাহ।

পরে সুবাহর বাসায় যাওয়ার পর কোমল পানীয়ের সঙ্গে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে সে আমাকে খাওয়ায়। আমি বেহুঁশ হয়ে পড়লে আমাকে উলঙ্গ করে এবং সে নিজেও অর্ধনগ্ন হয়ে অন্তরঙ্গ ছবি তোলে ও ভিডিও ধারণ করে। এমনকি আমি অজ্ঞান থাকা অবস্থায় সে আমার ফোন থেকে স্ত্রী কারিন নাজ, পরিবারের সদস্য ও ফোনবুকে থাকা ২০ / ৩০ জনের নম্বর নিয়ে নেয়। এরপর সে আমাকে ব্ল্যাকমেইল করে ৫০ লক্ষ টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে আমার আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। তার এমন কাণ্ডে আমি ভয় পেয়ে যাই এবং মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ি’ বলেও উল্লেখ করেছেন ইলিয়াস।

তিনি আরও জানিয়েছেন সুবাহর দাবীকৃত ৫০ লক্ষ টাকা দিতে না পাড়ায় আমি চুপ থাকি। নিরুপায় হয়ে আমি তাকে অনুরোধ করি, ৫০ লক্ষ টাকা দেওয়ার সামর্থ্য নেই ধারদেনা করে ৫ লক্ষ টাকা দিতে পারি। এ অনুরোধ শুনে সুবাহ জানায়- আমার টাকা দেওয়ার দরকার নেই। বিনিময়ে তাকে আমার বিয়ে করতে হবে। তার এই প্রস্তাবে রাজি না হলে সে আমার ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে দিতে চায়। বাধ্য হয়েই আমি তার কথামতো চলতে থাকি। বিয়ে করতে বাধ্য হই।

এজাহারে আরও বলা হয়েছে, বিয়ের পরদিনই সুবাহ জানায় তার বাসার ৩ মাসের ভাড়া বাকি। স্বামী হিসেবে আমাকে বাসার ভাড়া পরিশোধ করতে হবে। তার চাপে আমি সেটা পরিশোধ করি। দিন দিন সুবাহর চাহিদা বাড়তেই থাকে। ঢাকায় তার স্থায়ী ঠিকানা নেই জানিয়ে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় একটি ফ্ল্যাট ও একটি হ্যারিয়ার গাড়ি কিনে দিতে চাপ দেয়।

ব্যবসার অবস্থা ভালো নেই জানিয়ে আমি বিষয়টি এড়িয়ে যাই। পরবর্তীতে সে গুলশানে একটি স্পা সেন্টার খুলে দেওয়ার জন্য চাপ দেয়। আমি বুঝতে পারি, সুবাহ পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক আমার কাছ থেকে ফ্ল্যাট,গাড়িসহ আরও বড় কিছু হাতিয়ে নেওয়ার জন্য ব্ল্যাকমেইলিংয়ের ফাঁদে ফেলেছে।

নির্যাতনের কথা উল্লেখ করে ইলিয়াস বলেছেন, ‘সুবাহ আমাকে মারধর করতো। এমনকি সে নিজের গায়েও আঘাত করে ফেসবুক লাইভে এসে আমার ওপর দোষ চাপাতো। আমার স্ত্রীকে (কারিন নাজ) ডিভোর্স দেওয়ার জন্য চাপ দিতো। আমার দিক থেকে সাড়া না পেয়ে অত্যাচারের মাত্রা বাড়িয়ে দিতো।

উল্লেখ্য অভিনেত্রী সুবাহ ও গায়ক ইলিয়াস বিয়ে করেছেন গত বছরের পহেলা ডিসেম্বর। এর ক’দিন পরেই তাদের সংসারজীবনে ফাটল ধরতে শুরু করে। একে অপরের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলে ধরেন গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। শেষ পর্যন্ত তা আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

আর্কাইভ

ফেসবুকে আমরা