1. admin@dainiksomoy24.com : admin :
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৮:৫২ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
২০১৮ সাল থেকে সংবাদ পরিবেশনে জনপ্রিয় দৈনিক সময় ২৪.কম। সারা বাংলাদেশের সকল জেলা ও উপজেলা এবং স্টাফ রিপোর্টার, বিশেষ প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে যোগাযোগ করুন 01716605694
শিরোনাম :
সাকিব খান যুক্তরাষ্ট্রের স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি পেয়েছে হাতীবান্ধায় ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত ইভিএম এর উপর জনগণের কোন আস্থা নাই : বাংলাদেশ ন্যাপ চিত্রনায়িকা অঞ্জনার জন্মদিনে জায়েদ খানের শুভেচ্ছা পদ্মা সেতুতে স্পিডগান সিসিটিভি বসানোর পরে বাইক চলাচলে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বরগুনায় হাতকড়াসহ পলাতক মাদক মামলার আসামি গ্রেফতার সৌদি আরবে হজ্জ যাত্রী ভিক্ষা করে বাংলাদেশী হাজী আটক পদ্মা সেতু‌ রেলিংয়ের নাট‌ বল্টু খুলে আলোচিত বায়েজিদের গ্রা‌মের বাড়ীতে ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা পিডিএম প্রধান ফজলুর রেহমান বলেছেন ইমরান খানকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেয়ার জন্য তিনি দায়ী পদ্মা সেতুতে পেঁয়াজবাহী একটি ট্রাক উল্টে চালকসহ তিনজন আহত হয়েছেন

হাতীবান্ধায় প্রায় ৩০০ বিঘা জমির চাষাবাদ অনিশ্চিত

দৈনিক সময় ২৪
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ২৭৮ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার: মোঃ রায়হানুল ইসলাম

লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার সিন্দুনা,পাটিকাপাড়া ,ও টংভাঙ্গা ইউনিয়ন দিয়ে বয়ে গেছে সতী নদী। এখানে প্রতি বছর ৬০০০-৭০০০ মন ধান উৎপাদন হয়।যা দিয়ে এখানকার মানুষের সংসার চলে।

কিন্তূ এ বছরে সতীর পানি না কমার কারনে ইরি ধান রোপণ করতে পারছে না কৃষকেরা।
স্থানীয় দের অভিযোগ গত বছরে সতীতে ক্যানেল খননের কারনে তিস্তা নদীর চেয়ে সতী নদীটির গভীরতা বেশি হয়েছে ।

এবং যেখানে সতী নদী ও তিস্তা নদী মিলিত হয়েছে সেখানে তিস্তা নদীর বালুর চর পড়ে উঁচু হয়ে গেছে যার কারণে সতী নদীর পানি বের হয়ে যেতে পারছে না। স্থানীয়দের অভিযোগ বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার পরও কোনো প্রকার পদক্ষেপ নেয়নি ।

স্থানীয় সাংসদ জনাব মোঃ মোতাহার হোসেন কে এ ব্যাপারে জানার পরেও কোন প্রকার পদক্ষেপ নেয়নি বলে জানান এলাকাবাসী এই নদী তে স্থানীয়দের হিসাবমতে ৬থেকে ৭ হাজার মণ ধান উৎপাদন হয়।

ধান রোপন করার জন্য তারা নিজস্ব অর্থায়নে চারটি শ্যালো মেশিন দিয়ে প্রায় এক মাস থেকে পানি শুকানোর চেষ্টা করতেছে কিন্তু বৃষ্টি ও জোয়ারের কারণে পানি কমাতে পারছে না ।
এক মাসে তাদের নিজস্ব অর্থায়নে পানি শুকানোর ব্যবস্থা চালিয়ে যান এখন তারা জানান যে তারা আর্থিকভাবে আর পারতেছেনা এখন সরকারিভাবে কোনো বরাদ্দ না আসলে এই ৩০০ বিঘা জমি আবাদ অনিশ্চিত।

এলাকাবাসীর দাবি সরকারিভাবে পানি শুকানোর ব্যবস্থা করলে স্থানীয় লোকজন উপকৃত হবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

আর্কাইভ

ফেসবুকে আমরা