1. admin@dainiksomoy24.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৪:৫৬ অপরাহ্ন
নোটিশ :
২০১৮ সাল থেকে সংবাদ পরিবেশনে জনপ্রিয় দৈনিক সময় ২৪.কম। সারা বাংলাদেশের সকল জেলা ও উপজেলা এবং স্টাফ রিপোর্টার, বিশেষ প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে যোগাযোগ করুন 01716605694
শিরোনাম :
হাতীবান্ধায় বন্যাদুর্গত মানুষকে ত্রাণসহায়তা দিলেন অ্যাডভোকেট উজ্জ্বল পাটোয়ারী লেংগুড়া ইউনিয়নে ফুলবাড়ী এলাকায় বন্যায় বিধ্বস্থদের মাঝে সাংবাদিকদের খাদ্য বিতরণ পঞ্চগড় গুচ্ছগ্রামের ৫০টির বেশি পরিবার পানিবন্দি সরকারি আইন অমান্য করে পদ্মা সেতুতে ছবি উঠালেন চিত্রনায়িকা শিরিন শিলা জালিয়াতি করে জমি রেজিট্রির চেষ্টা দলিল লেখকের লাইসেন্স স্থগিত ডেন্টাল চিকিৎসকদের দিনব্যাপী কর্মশালা অনুষ্ঠিত দেশাত্মবোধকে পদদলিত করা কোনোক্রমেই ন্যায় সঙ্গত নয় : আ স ম আবদুর রব নুরাবাদ ও জাহানপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটি অনুমোদন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মসজিদে জামাতে নামাজ আদায়ে নয়টি নির্দেশনা সাকিব খান যুক্তরাষ্ট্রের স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি পেয়েছে

গরু ও খাসির মাংস খাওয়া জেনে আকাশ ছোঁয়া স্বপ্ন

দৈনিক সময় ২৪
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১০ মে, ২০২২
  • ৫০ বার পঠিত

 

নীলফামারী জেলা প্রতিনিধি:

 

 

 

 

 

 

 

মধ্যম আয়ের মানুষও এখন আর গরুর মাংস কেনার সাহস করছে না। অনেক পরিবার শুধু বাড়িতে অতিথি এলে নিরুপায় হয়ে গরুর মাংস কেনার সাহস দেখায়। এ অবস্থা চলতে থাকলে ভবিষ্যতে এই মানুষগুলোর সাধ্যের মধ্যে আর থাকবে না গরুর মাংস।

 

 

 

 

 

অথচ দেশে প্রতিবছর বাড়ছে গরু-মহিষ, ছাগল-ভেড়ার উৎপাদন। তার পরও গরুর মাংসের দাম বাড়ছে। মাংস কিনতে নাভিশ্বাস ভোক্তাদের।

 

 

 

 

নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে বেড়েছে গরু ও খাসির মাংসের দাম। কেজি প্রতি গরু ১৫০ ও খাসি ১০০ টাকা বেড়ে গরুর মাংসের দাম হয়েছে ৬৫০ টাকা ও খাসির মাংসের দাম ৮৫০ টাকা।

 

 

 

এছাড়াও দেশি মুগরি ৪৫০ টাকা, সোনালী মুরগি ৩০০ টাকা কেজি ও বয়লার মুগরির দাম ১৮০ টাকা কেজি। দিন দিন নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বাড়ায় সাধারণ ক্রেতাদের নাভিস্বাস অবস্থা। অন্যদিকে বেড়েছে শাক-সবজি, মাছ, তেল, কাঁচা তরু তরকারীসহ সকল নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম এছাড়া সয়াবিন তেলের দাম এক লাফে ৩৮ টাকা বেড়ে ২১০টাকায় গিয়ে ঠেকেছে।

 

 

 

 

 

সোমবার (০৯ ই মে) ডিমলা উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ঘুরে দেখা যায় এসব চিত্র। গরুর মাংস ৬৫০ টাকা কেজি ও খাসির মাংস ৮৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়াও খোলা সোয়াবিন তেল ১৯৫ টাকা ও বোতলের এক লিটার তেল বর্তমানে ২১০ টাকা এবং মশুর ডাল ১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি দিনই নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বাড়ার করনে সাধারণ ক্রেতারা পড়েছে বিপাকে। বাড়ছে ক্রেতাদের মধ্যে ক্ষোভ।

 

 

 

 

 

ডিমলা উপজেলার বিভিন্ন সবজি বাজার ঘুরে জানা যায়, লাউ ৪০-৪৫ টাকা পিস, বেগুন ৪০-৪৫ টাকা কেজি, কাঁচা মরিচ ২৫-৩০ টাকা কেজি, করলা কেজি ৪০-৪৫ টাকা, পেঁয়াজ ৩৫-৪০ টাকা ও শসা ৩০-৩৫ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

 

 

 

 

মাংস ও মাছ বাজারে ঘুরে দেখা যায়,  গরুর মাংস ৬৫০ টাকা কেজি ও খাসির মাংস ৮৫০টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

 

 

 

 

 

ছোট ইলিশ ৪৫০-৭৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে, রুই মাছ ২৪০-২৬০ টাকা কেজি, মিরকা মাছ ১৭০ টাকা কেজি, টেংরা মাছ ৫০০-৬০০ টাকা কেজি, তেলাপিয়া ১৫০ টাকা, জাপানী রুই মাছ ১৮০-২০০ টাকা, বাচা মাছ ১৫০ টাকা, পাংগাস মাছ ১৪০-১৫০টাকা কেজি, সিলভার কাপ ১২০-১৪০ টাকা, লাল ডিম হালিতে ৪ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৩৬ টাকা হালি, সাদা ডিম ৪ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৩২ টাকা হালি দরে বিক্রি হচ্ছে।

 

 

 

 

 

গয়াবাড়ী ইউনিয়নের শুটিবাড়ী বাজারের মাংস বিক্রেতা মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, হাটে প্রতিটি গরুর দাম ১০-১৫ হাজার টাকা বেশি দরে কিনতে হচ্ছে তাই মাংসের দাম একটু চড়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

আর্কাইভ

ফেসবুকে আমরা